Request For Writing Submission ID

Before submitting the form please read the FAQ section below & at the very end there is form to fill up for getting submission ID.

FAQ

নির্মল বাংলাদেশ” একটি অলাভ জনক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা

নির্মল বাংলাদেশ মূলত শিক্ষা কেন্দ্রিক কার্যক্রম এর সাথে জড়িত, পাশাপাশি নিমর্ল বাংলাদেশ অসহায় মানুষদের জন্য কাজ করছে, ভবিষ্যতে করবে বলে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ, নির্মল বাংলাদেশ ইয়ং জেনারেশন এর উদ্দেশ্য সম্প্রতি অনেক কাজ করেছে, তার একমাত্র বড় উদহারণ হলো বই মেলাতে ইয়ং টেলেন্টদের লেখা সংগ্রহের মাদ্ধমে ইয়ং টেলেন্টদের বই লেখার প্রতি অধিক মনোযোগী করে তোলা , ভবিষ্যতে ইয়ং জেনারেশন যেনো নির্মল বাংলাদেশের মেম্বার হয়ে দেশ ও দেশের মানুষ এর জন্য কাজ করতে পারে & নিজের কেরিয়ারকে স্টাব্লিশ করতে পারে ,সেই উদ্দেশ্যে নির্মল বাংলাদেশ তথা সংশ্লিষ্ট মেম্বারগণ নিরালস পরিশ্রম করে

নির্মল বাংলাদেশ একটি চ্যারিটি অর্গানিজশন, এই টাকা সাবমিট করার মাধ্যমে নির্মল বাংলাদেশ দেশের অভাবী মানুষদের কল্লানে খরচ করবেকারণ নির্মল বাংলাদেশ প্রতিজ্ঞাবদ্ধ দেশ  দেশের মানুষ এর কল্যানে কাজ করার জন্যমূলত নির্মল বাংলাদেশ প্রোগ্রাম অর্গানাইজডকরার মাধ্যমে যে টাকা পেয়ে থাকে তার একটি টাকা  নিজ কার্যক্রম এর জন্য খরচ করে না, সুতরাং যে অর্থ আপনি সাবমিশন ফি হিসাবে দিচ্ছেন,আপনার সেই মূল্যবান অর্থ দেশের অভাবী মানুষ দের কল্লানে আপনি ডোনেট করলেন

তৃষ্ণাতুর হলো নির্মল বাংলাদেশ কর্তৃক প্রকাশিত বার্ষিক সাহিত্য সংকলন যা গত ২০২০ সালের অমর একুশে গ্রন্থমেলা হতে প্রথমবারের মত প্রকাশিত হয় নির্মল বাংলাদেশ বিশ্বাস করে এদেশের প্রতিভাবান তরুনদের মধ্যেই আছে আগামির বাংলাদেশের অমিত সম্ভাবনা তাই এদেশের তরুন প্রতিভাবনদের সুপ্ত প্রতিভাবে আরো বিকশিত করতে একই সাথে তাদের মেধাকে দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক পরিমন্ডল থেকে স্বীকৃতি এনে দিতে নির্মল বাংলাদেশের তৃষ্ণাতুর প্রকাশ করা 

নির্মল বাংলাদেশ বিশ্বাস করে তৃষ্ণাতুরের মাধ্যমে বাংলাদেশ আগামী প্রজন্মের একজন জহির রায়হানহুমায়ন আহমেদের মতো লেখকদের পাবে আমরা চাই তরুন লেখকগন স্বতঃস্ফুর্ত অংশগ্রহনের মাধ্যমে প্রতিভা বিকাশের সুযোগ পাবে 

তৃষ্ণাতুরের ২০২১ সালের সংকলনে আপনার লেখা প্রকাশ করতে যা করতে হবেঃ 

  1. নির্মল বাংলাদেশের ওয়েব সাইটের “Writing Submission” পেইজে “Request for Submission ID” এর জন্য আবেদন করুন 

2. আবেদন এর শেষ ধাপে Submission Fee বিকাশের মাধ্যমে প্রদান করুন 

3. এর পর  আবেদন ফি প্রদানের “ট্রানজেকশন আইডি/ Transaction ID” দিয়ে আবেদন সমাপ্ত করুন 

4. আপনার আবেদনের পরবর্তী ২৪ ঘন্টার মধ্যে আপনার মোবাইল নম্বরে Writer’s Submission ID টি SMS করে পাঠানো হবে 

5. Writer’s Submission ID টি পাওয়ার পর এটি ব্যবহার করে আপনি একাধিক লেখা জমা দিতে পারবেন 

নির্মল বাংলাদেশ তার সকল কার্যক্রম আপনাদের সরাসরি সহায়তায় (আর্থিক/শ্রম/মেধাবাস্তবায়িত হয়। আর প্রতিনিয়ত আমাদের বিশাল এই কার্যক্রম চালিয়ে নিতে অনেক অর্থের প্রয়োজন হয়যা মূলত বিভিন্ন দাতা ব্যাক্তি/প্রতিষ্ঠান বা নানা ধরনের প্রোগ্রামের মাধ্যমে এসে থাকে। একই ভাবে প্রতিবছর “তৃষ্ণাতুর” প্রকাশে বড় অংকের অর্থ খরচ হয়ে যায় 

আপনারদের নিকট থেকে সাবমিশন ফি যেটি নেওয়া হচ্ছে তা দিয়ে আমাদের বইটি প্রকাশিত হবে না। আপনাদের নকট থেকে স্বল্প এই অর্থ নেওয়া হচ্ছে ডোনেশন হিসেবে। আপনার লেখাটি বিনামূল্যেই প্রকাশিত হবে। বরং আপনার নিকট হতে প্রাপ্ত অনুদান টি ইনশাআল্লাহ সমাজের অসহায়দরিদ্র এবং সামাজিক উন্নয়নমূলক কোন কাজে ব্যয় হবে 

আপনার লেখা নির্বাচিত না হলে এটা ভাববে না যে আপনার টাকা গুলো নষ্ট হলো। বরং আপনাদের সবার দানে সমাজের একটা উপকার হবে ভাবতে পারেন। আমরা আবার কথা্ দিচ্ছিআপনার টাকা গুলো অপচয় হবে নাসামাজিক উন্নয়ন ও জনস্বার্থে কাজে লাগবে 

সাবমিশন ফি হচ্ছে ১০০ টাকা (মেম্বার, ননমেম্বার সকলের জন্য একই)। এবং ১০০ টাকায় আপনি সর্বোচ্চ ৫ টি লিখা জমা দিতে পারবেন।

সাবমিশন ফি জমা দেওয়া যাবে বিকাশ/রকেট/নগদে। জমা দিতে এই ধাপ গুলো অনুসরন করুনঃ 

Go to Bkash/Nagad?Rocket > Send Money > Type Number: +8801757-424035 > *Amount: 200 > PIN > SEND 

*আপনার ক্যাটাগরি অনুসারে সেই পরিমান অনুদান জমা দিন 

আপনার মূল্যবান টাকা আমরা বুঝে পেয়েছি এটা আপনাকে INSURE করার জন্য ,নির্মল বাংলাদেশ এর ইনফরমেশন টিম আপনাকে একটা ID প্রদান করবেন. এটি মূলত আপনার সাবমিশন ID. 

সাবমিশন ফি জমা দেওয়া পর নির্মল বাংলাদেশ এর ইনফরমেশন টিম আপনাকে একটা ID প্রদান করবেন. এটি মূলত আপনার সাবমিশন ID 

আপনারদের নিকট থেকে সাবমিশন ফি যেটি নেওয়া হচ্ছে তা দিয়ে আমাদের বইটি প্রকাশিত হবে না আপনাদের নিকট থেকে স্বল্প এই অর্থ নেওয়া হচ্ছে ডোনেশন হিসেবে আপনার লেখাটি বিনামূল্যেই প্রকাশিত হবে বরং আপনার নিকট হতে প্রাপ্ত অনুদান টি ইনশাআল্লাহ সমাজের অসহায়দরিদ্র এবং সামাজিক উন্নয়নমূলক কোন কাজে ব্যয় হবে 

আপনার লেখা নির্বাচিত না হলে এটা ভাববে না যে আপনার টাকা গুলো নষ্ট হলো বরং আপনাদের সবার দানে সমাজের একটা উপকার হবে ভাবতে পারেন আমরা আবার কথা্ দিচ্ছিআপনার টাকা গুলো অপচয় হবে নাসামাজিক উন্নয়ন  জনস্বার্থে কাজে লাগবে 

নির্মল বাংলাদেশ তার সকল সদস্যদের ব্যাক্তিগত সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে। আপনার সকল তথ্য আমাদের নিকট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই সকল গ্রাহকদের সকল তথ্য গুপনীয়তার সাথে নিরপত্তা দেওয়া হবে